Engineer Simple https://www.engineersimple.com/2022/06/Reasons%20for%20the%20current%20state%20of%20affairs%20in%20Pakistan.html

পাকিস্তানের সরকার ব্যবস্থায় বর্তমান অবস্থার কারণ(বিস্তারিত)

পাকিস্তানের সরকার ব্যবস্থায় বর্তমান অবস্থার কারণ

পাকিস্তানের সরকার ব্যবস্থায় বর্তমান অবস্থার কারণ(বিস্তারিত)
পাকিস্তানের রাজনৈতিক অর্থনীতির অব্যবস্থাপনা ও ভুল পররাষ্ট্রনীতির অভিযোগে বিরোধী দলগুলো দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনে গত ৭মার্চ ২০২২ পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ জাতীয় পরিষদে। প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব জমা দেয় বিরোধী দলগুলো। ২৫ মার্চ ২০২২ প্রস্তাবটি জাতীয় পরিষদে উত্থাপন না করতেই অধিবেশন মুলতবি ঘোষণা করেন স্পিকার আসাদ কায়সার। ২৮ মার্চ ২০২২ বিরোধীদলীয় নেতা শাহবাজ শরীফ প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বিরুদ্ধে পার্লামেন্টে অনাস্থা প্রস্তাব উত্থাপন করেন। কিন্তু বিরোধীদের আনা অনাস্থা প্রস্তাব 'অসাংবিধানিক' আখ্যা দিয়ে ৩ এপ্রিল ২০২২ জাতীয় পরিষদের ডেপুটি স্পিকার কাসিম খান সুরি প্রস্তাবটি খারিজ করে দেন এবং অধিবেশন স্থগিত করেন। একই দিন প্রধানমন্ত্রীর পরামর্শে জাতীয় পরিষদ ভেঙে দিয়ে আগাম নির্বাচনের ঘোষণা দেন প্রেসিডেন্ট আরিফ আলভি।


এরপর দেশটির সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন পাঁচ সদস্যের বেঞ্চ ৮ এপ্রিল ২০২২ সর্বসম্মতভাবে অনাস্থা ভোট খারিজ ও জাতীয় পরিষদ ভেঙে দেওয়ার সিদ্ধান্ত বাতিল করেন। একই সঙ্গে অনাস্থা প্রস্তাবের ওপর ৯ এপ্রিল ২০২২ ভোট গ্রহণের নির্দেশ দেন। নানা নাটকীয়তা শেষে ১০ এপ্রিল ২০২২ রাত দুইটার দিকে পাকিস্তানের পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ জাতীয় পরিষদের অধিবেশনে অনাস্থা প্রস্তাবে ভোটাভুটি অনুষ্ঠিত হয়। ৩৪২ আসনের জাতীয় পরিষদে ইমরান খানের বিরুদ্ধে ভোট পড়ে ১৭৪টি। অর্থাৎ পতন হয় প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের। নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন মুসলিম লীগের সভাপতি শাহবাজ শরিফ যিনি নওয়াজ শরীফের ছোট ভাই।

 


 উল্লেখ্য এই মন্ত্রিপরিষদের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হয়েছেন পিপলস পার্টির চেয়ারম্যান বিলাওয়াল ভুট্টো।

  • ইমরান খান : প্রধানমন্ত্রী হোন ২০১৮ সালের ১৮ আগস্ট, পাকিস্তানের ২২তম প্রধানমন্ত্রী হিসেবে।

রাজনৈতিক দল পিটিআই (পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ)।

  • পাকিস্তানের আইনসভার নাম : পার্লামেন্ট যা দ্বিকক্ষবিশিষ্ট আইনসভা।

*উচ্চকক্ষ সিনেট; সদস্য সংখ্যা ১০০ জন। নিম্নকক্ষ; জাতীয় পরিষদ সদস্য সংখ্যা ৩৪২ জন।

উল্লেখ্য, অনাস্থা প্রস্তাবে ইমরানের বিরুদ্ধে ভোট পড়ে ১৭৪টি যেখানে, প্রস্তাবটি পাসের জন্য দরকার ছিল ১৭২ ভোট। ১০ এপ্রিল, ২০২২ পাকিস্তানের ইতিহাসে এই প্রথম কোন প্রধানমন্ত্রীকে অনাস্থা ভোটে পরাজিত হয়ে ক্ষমতা ছাড়তে হল।

  • ১৯৯২ সালে পাকিস্তান ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে জয়লাভের মাধ্যমে প্রথম বিশ্বকাপ ক্রিকেট চ্যাম্পিয়ন হয়।ক্যাপ্টেন ছিলেম ইমরান খান।
  • তার ঠিক চার বছর বাদে ইমরান খান ১৯৯৬ সালের ২৫ এপ্রিল প্রতিষ্ঠা করেন নিজ রাজনৈতিক দল

তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই)।

  • ২০২২ সালের ২৩-২৪ ফেব্রুয়ারি ২ দিনের সফরে মস্কোয় যান ইমরান খান। উক্ত সময় রাশিয়া সফরে না যেতে যুক্তরাষ্ট্র ইমরানকে অনুরোধ করেছিলো।
  • প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের পতন হয় ১০ এপ্রিল, ২০২২ সালে।
  • শাহবাজ খান পাকিস্তানের নতুন প্রধানমন্ত্রী হন ২০২২ সালের ১১ এপ্রিল ২৩তম প্রধানমন্ত্রী হিসেবে।
  • পাকিস্তানের সংবিধানে ফ্লোর ক্রসিং ৬৩-ক অনুচ্ছেদে।

মূলত ইমরান খানের পতন হলো:

ইউক্রেন সংকটের মধ্যে ইমরান খানের রাশিয়া সফর ভালোভাবে নেয়নি যুক্তরাষ্ট্র। ফলে যুক্তরাষ্ট্রের ইন্ধনে পাকিস্তানের সেনাবাহিনী প্রধান ইমরান খানের রুশ নীতির কড়া সমালোচনা করেন। অন্যদিকে ইমরান খান সরকার গঠন করেছিলেন অন্যান্য সংখ্যালঘু দলের সমর্থন নিয়ে। রাজনৈতিক কূটনীতিতে সেই ছোট দলটি ইমরান খানের উপর থেকে সমর্থন প্রত্যাহার করে নিলে পার্লামেন্টে ইমরান খান সংখ্যাগরিষ্ঠ এমপির সমর্থন হারান।

ইমরান খানের পতনের কারণগুলো হলোঃ

১)পাঞ্জাবে দুর্নীতিবাজ মুখ্যমন্ত্রী নিয়োগ। ২) জীবনযাত্রার ব্যয় বৃদ্ধি পাওয়া।

৩) সেনাপ্রধান কামার বাজওয়া ও আইএসআই প্রধান হামিদের মধ্যে ক্ষমতার সংঘাত।

৪) ইমরান খান কর্তৃক সেনাপ্রধানের চেয়ে আইএসআইয়ের প্রধানকে প্রাধান্য দেয়া।

৫) ইমরান খানের রুশনীতি।

৬)সীমাহীন দুর্নীতি এবং স্বজনপ্রীতি।

৭) মুদ্রাস্ফীতি

  • ইমরান খান সরকার যে যে সংখ্যালঘু দলের সমর্থন নিয়ে সরকার গঠন করেছিলেনঃ

১)বেলুচিস্তান আওয়ামী পার্টি; 

২)এমকিউএস-পাকিস্তান;

৩)গ্রান্ড ডেমোক্রেটিক এলায়েন্স।


Share with others

0 Comments

Publish comments by following these Rules.??

অর্ডিনারি আইটি কী?