Engineer Simple https://www.engineersimple.com/2022/07/Details%20of%20Brilliant%20App.html

ব্রিলিয়ান্ট অ্যাপ এর বিস্তারিত

ব্রিলিয়ান্ট অ্যাপ:


ব্রিলিয়ান্ট অ্যাপ হলো একটি ইন্টারনেট ভিত্তিক কথা বলার অ্যাপ।

ব্রিলিয়ান্ট অ্যাপ এর বিস্তারিত

 


আমাদের দেশে একটা সময় ছিল যখন কথা বলতে গেলে মিনিটে ০৭ (সাত) টাকার বেশি খরচ হতো।

কিন্তু বর্তমানে কিছু আইটি প্রতিষ্ঠান ও বিভিন্ন মোবাইল অ্যাপস কম খরচে কথা বলার এক দারুন সুবিধা দিয়ে যাচ্ছে।

যা দিয়ে আপনি অনেক কম খরচে দেশ-বিদেশে যে কোনো যায়গায় অডিও বা ভিডিও কলে কথা বলতে পারেন।

আজ আমরা এমন একটি অ্যাপস নিয়ে কথা বলবো যা নিয়ে আপনি ৩৪ পয়সা প্রতি মিনিটে (ভ্যাট সহ) আনলিমিটেড কথা বলতে পারবেন।

অ্যাপটির নাম হচ্ছে ব্রিলিয়ান্ট অ্যাপ

যার বিন্তারিত নিম্নে আলোচনা করা হলো:


অ্যাপটি চালু করার জন্য প্রথমে আপনাকে আপনার ‘প্লে স্টোর’ থেকে অ্যাপটি ডাউনলোড করতে হবে।

ডাউনলোড করতে: ক্লিক করুন

তারপর অ্যাপটি ডাউনলোড করার পর ইনস্টল করে চালু করতে হবে।

এরপর আমাদের প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে রেজিষ্ট্রেশন করার জন্য সেটিংস  অপশনে যেতে হবে।

এরজন্য আমাদের একটি মোবাইল নম্বর লাগবে এবং সেটা অবশ্যই সাথে থাকতে হবে কারণ রেজিষ্ট্রেশন করার সময় একটি ভেরিফিকেশন কোড যাবে সেটি দিতে হবে।

এবং জাতীয় পরিচয়পত্র লাগবে। সেখানে যেভাবে তথ্যগুলো আছে ঠিক সেভাবে পূরণ করতে হবে।

পূরণ করার পর ২৪ থেকে ৪৮ ঘন্টার মধ্যে অ্যাপটি সচল হয়ে যাবে

রিচার্জ করার পদ্ধতি:


এই অ্যাপটিতে বিভিন্ন উপায়ে রিচার্জ করা যায়। যেমন: বিকাশ, রকেট, ডাচ-বাংলা, অনলাইন ব্যাংক একাউন্টের মাধ্যমে, বিভিন্ন মাস্টার কার্ডের মাধ্যমে, আরো নানান উপায়ে।

আমরা বিকাশের মাধ্যমে রিচার্জ পদ্ধতি নিয়ে আলোচনা করতেছি। আপনি চাইলে ঠিক একই উপায়ে অন্য মাধ্যম দিয়ে রিচার্জ করতে পারেন।

১. এর জন্য আমাদের প্রথমে বিকাশে ঢুকার জন্য *247# ডায়াল করতে হবে।

ব্রিলিয়ান্ট অ্যাপ ১ নং উপায়

২. সেখান থেকে আমাদের পেমেন্ট অপশনটিতে যেতে হবে।

ব্রিলিয়ান্ট অ্যাপ ২ নং উপায়

৩. তারপর সেখানে মার্চেন্ট বিকাশ নাম্বার এর ফাঁকা জায়গায় ০১৭০৯৮১৮২৫৯ লিখতে হবে।

ব্রিলিয়ান্ট অ্যাপ ৩ নং উপায়

৪. তার পর যত টাকা রিচার্জ করতে চান তার পরিমাণ লিখতে হবে। তবে বলা বাহুল্য যে, ২০ টাকার নিচে লোড দিলে ৩ টাকা অতিরিক্ত চার্জ কাটবে।

৪ নং উপায়

৫. তারপর রেফারেন্স নাম্বারটির ঘরে অ্যাপটি চালু করার পর ১১ সংখ্যার যেই নাম্বারটা তারা আপনাকে দিবে সেটা দিতে হবে।

৫ নং উপায়

৬. কাউন্টার নাম্বার ১ দিতে হবে।

ব্রিলিয়ান্ট অ্যাপ ৬ নং উপায়

৭. এবং তারপর আপনার বিকাশ একাউন্টের পিন নাম্বারটি দিতে হবে।

৭ নং উপায়

৮. তারপর রিচার্জ সফল হয়ে গেলে একটি ট্রানজেকশন কোড দিবে। সেটা ব্রিলিয়ান্ট অ্যপ এর রিচার্জ অপশনে ট্রানজেকশন ঘরে বসিয়ে দিলেই রিচার্জ সফল হয়ে যাবে।

৮ নং উপায়

এভাবে আপনি ব্রিলিয়ান্ট অ্যাপ এর সকল কার্যাবলি সম্পন্ন করতে পারেন এবং আপনার প্রিয়জনদের সাথে সকল নাম্বারে আনলিমিটেড কথা বলতে পারেন ।

বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন।

Share with others

0 Comments

Publish comments by following these Rules.??

অর্ডিনারি আইটি কী?